Wednesday, December-11, 2019, 02:51 PM
Home / অপরাধ / মিলার সাবেক স্বামীকে হত্যাচেষ্টায় কিম জন রিমান্ডে, আগাম জামিন মিলার

মিলার সাবেক স্বামীকে হত্যাচেষ্টায় কিম জন রিমান্ডে, আগাম জামিন মিলার

সংগীতশিল্পী মিলার সাবেক স্বামী পাইলট এস এম পারভেজ সানজারিকে হত্যাচেষ্টা মামলার আসামি কিম জন পিটার হালদারকে (৩৩) রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার ঢাকা মুখ্য মহানগর হাকিম আদালত কিম জনকে তিন দিন রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি দেন। আসামি কিম জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

বৃহস্পতিবার আসামি কিম জন পিটার হালদারকে আদালতে হাজির করে ১০ দিন রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করে ডিবি পুলিশ। শুনানি শেষে আদালত পিটার হালদারকে ৩ দিন রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করার অনুমতি দেন।

আদালত সূত্র বলছে, আসামি কিম জন পিটার হালদারকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করছে ডিবি-পুলিশ।

গত ৪ জুন মিলার সাবেক স্বামী পারভেজ সানজারির বাবা এস এম নাসির উদ্দিন সংগীতশিল্পী মিলা এবং পিস জন পিটার হালদারের বিরুদ্ধে উত্তরা পশ্চিম থানায় মামলা করেন। মামলায় পিস জন পিটারকে সংগীতশিল্পী মিলার কর্মচারী বলে পরিচয় দেওয়া হয়। এ মামলায় ২ জুলাই হাইকোর্ট থেকে আগাম জামিন পেয়েছেন সংগীতশিল্পী মিলা।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবির (উত্তর জোনাল টিম) এসআই নাসির উদ্দিন ৪ জুলাই আদালতকে প্রতিবেদন দিয়ে জানান, সংগীতশিল্পী মিলার সাবেক স্বামী এস এম পারভেজ সানজারির ওপর অ্যাসিড ছুড়ে মারার সঙ্গে আসামি কিম জন পিটার জড়িত আছেন বলে যথেষ্ট সাক্ষ্যপ্রমাণ পাওয়া গেছে। গত ২৬ মে আসামি কিম মিরপুর ডিওএইচএস সরকার মার্কেটের হার্ডওয়্যারের দোকান থেকে অ্যাসিড কেনেন। পরে মামলার অপর আসামি সংগীতশিল্পী মিলার সঙ্গে পরামর্শ করে ২৭ মে অ্যাসিডসহ এস এম পারভেজ সানজারির বাসার সামনে যান কিম। কিন্তু সেদিন বাসার সামনে সানজারিকে না পেয়ে সেদিন ফিরে আসেন। আসামি মিলার কথামতো অজ্ঞাত আসামিকে সঙ্গে নিয়ে ২ জুন সন্ধ্যা ৭টা ৫০ মিনিটে সানজারির বাসার সামনে যান। সানজারির মোটরসাইকেলের সামনে আসেন কিম জন। তখন কিম জন সানজারিকে বলেন, ‘আমাকে বাঁচান, আমাকে মেরে ফেলবে।’

আদালতকে দেওয়া প্রতিবেদনে তদন্ত কর্মকর্তা নাসির উদ্দিন আরও বলেন, সানজারি কিমকে চিনে ফেলেন। বাসার দিকে যাওয়ার চেষ্টা করলে কিম অ্যাসিড ছুড়ে মেরে পালিয়ে যান।
আদালত উভয় পক্ষের বক্তব্য শুনে কিম জনকে তিন দিন রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করার অনুমতি দেন। অ্যাসিডে আক্রান্ত মিলার সাবেক স্বামী সানজারির শরীরের ৮ থেকে ১০ শতাংশ পুড়ে যায় বলে জানান ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি বিভাগের আবাসিক চিকিৎসক।

২১ জুন সংগীতশিল্পী মিলা দাবি করেন, সাবেক স্বামী এস এম পারভেজ সানজারির ওপর অ্যাসিড ছুড়ে মারার ঘটনার সঙ্গে তিনি কোনোভাবেই জড়িত নন। ঘটনার সময় তিনি নিজের বাসায় ছিলেন।

মিলার সাবেক শ্বশুর চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক এস এম নাসির উদ্দিন মামলার এজাহারে বলেন, তাঁর ছেলে সানজারি একজন পাইলট। ২০১৭ সালের ১২ মে মিলার সঙ্গে তাঁর ছেলের বিয়ে হয়। বনিবনা না হওয়ায় গত বছরের ৩১ জানুয়ারি মিলাকে তালাকের নোটিশ দেওয়া হয়। ওই বছরের ২২ মে তালাক কার্যকর হয়।
এর আগে সংগীতশিল্পী মিলা ২০১৭ সালের অক্টোবর মাসে সাবেক স্বামী পারভেজ সানজারির বিরুদ্ধে উত্তরা পশ্চিম থানায় মামলা করেন। যৌতুক ও নির্যাতন চালানোর অভিযোগে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে এ মামলা করা হয়। মামলার পর পারভেজ সানজারি ২০১৭ সালের ৬ অক্টোবর গ্রেপ্তার হন।

Check Also

পেঁয়াজের বাজার মনিটরিং শুরু করেছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়

হঠাৎ করেই বেড়ে গেছে পেঁয়াজের ঝাঁজ। এর মাঝে আবার ঘি ঢেলেছে ভারত। বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি …

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৩তম জন্মদিন

২৮ সেপ্টেম্বর (শনিবার) আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৩তম জন্মদিন। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Brendan Gallagher Womens Jersey